Copyright

Protected by Copyscape Duplicate Content Software You will copy with risks to penalties and criminal procedures.

Monday, March 17, 2014

Aparajita

Photo courtesy: Nishant Nischal

Aparajita, today I saw a picture of you and remembered the afternoons we spent playing together. I used to touch your delicate petals with my little fingers and pretend your pods were peas for my play kitchen. You grew unassumingly on the fence by the guava tree.You did not demand much attention unlike the fancy plant that grows in a pot in my room now which needs water once a week and bleaches in the sunlight. You drank rain drops and flourished in the sun. I picked your blue flowers for my mother. She offered it to her favorite God- ‘nilkanth' for the Nilkanth’ I used to say.

I grew up, left home, and almost forgot about you until I found myself walking to my favorite spot again. The guava tree was gone, and so were you. The bamboo picket fence had to make way for the concrete in our lives. I don’t know if there is a poem about you, or if the claims that your medicinal properties can boost memory and fertility are true. I don’t care, I have to consider too many things for their utility value now. I want to remember you as you were- pure, demure and a sight for sore eyes that are now jaded by artificiality.

***
Note: The multilayered variety is called nilkanth. Also, Lord Shiva is sometimes referred to as Nilkanth or the ‘Blue-throated One’ because he drank the poison that emerged from churning the ocean (Samudra-manthan) that turned his throat blue.

Roughly translated (in Bengali):


অপরাজিতা , অনেক দিন পর আজ তোমার একটা ছবি দেখলাম। মনে পরে গেল গ্রীষ্মের সেই দুপুর গুলো যখন তুমি আমার খেলার সাথী ছিলে। আঙ্গুলের স্পর্শে তোমার  সূক্ষ্ম পাপড়ি অনুভব করতাম আর তোমার ফল আমার খেলার রান্নাঘরে কড়াইশুঁটি ছিল। তুমি  সূর্যরশ্মি আর বৃষ্টি খেয়ে বিস্তৃতি পেয়েছিলে। এখন আমার বাসকে একটি পাত্রে  রাখা উদ্ভিদটির মত নয় যেটা রোদে জ্বলে  যায় আর  সপ্তাহে  এক বার মাত্র জল পান করে। কোন  চাহিদাই  তোমার ছিল না। পেয়ারা গাছের পাশে বেড়াকে আলিঙ্গন করে তুমি বড় হচ্ছিলে।  তোমার নীল ফুল আমি মায়ের জন্যে নিয়ে আসতাম,  তার প্রিয় ঈশ্বরকে নিবেদন করার জন্যে। আমি বলতাম- নীলকন্ঠের জন্যে নীলকন্ঠ এনেছি মা!


তারপর বড় হলাম, বাড়ি ছেড়ে বাইরে পড়তে গেলাম, হয়ত তোমাকে ভুলেও গিয়েছিলাম। কিন্তু একদিন আবার ফিরে পেলাম নিজেকে ছোটবেলার সেই কোণটিতে। সেই পেয়ারা গাছ ছিল না, তুমিও ছিলে না । বাঁশ ফাঁড়ি হারিয়ে গেছে আমাদের জীবনে চূণমাটির জায়গা করে দিতে। জানি না তোমার নামে কোন কবিতা আছে কিনা। স্মৃতিশক্তি এবং উর্বরতার  উন্নতিসাধন করতে পার বলে  যে দাবি তা সত্য কি না। ।  অনেককিছুর উপযোগিতাই এখন আমাকে বিবেচনা করতে হয়। না , আমি তোমাকে মনে রাখতে চাই  যেমন ছিলে  তেমনি-  পবিত্র, অচপল এবং শ্রান্ত  চোখের শান্তি যা এখন কৃতিমতার বন্দী।

4 comments:

NISHANT NISCHAL said...

It's a flower which has a lot to do with my childhood as well. Thank you for putting up this beautiful piece of memoir, there are a lot of incidents that I share with you, for instance, concrete taking over the bamboo pickets. Greatest regards. xx

Aparna Kar said...

Thanks for sharing the picture Nishant, a lot of people I know were transported back to their childhood. It was like seeing a long-lost friend again.

amitabha said...

There is a Bengali poem on Aparajita. Sad I have forgotten the poet (Satyendranath Datta?) or the whole poem. the poem started like 'Parajita Tui Sokol Phuler Kache, Tobu Keno Tore Aparajita Naam?'
But it is such a beautiful deep blue flower that it remains undefeated by many flowers.

Anirban Kar said...

Aparajita,

Tomar kanthe chilo amar naam,
Tomar bhakti te chilo amar naam,
Dur Duaronto deshe giye aami hariyechi -
Tomar bhakti er jode aami nijeke fire peyechi.

Aparajita,

Tomar prarthana jaabe nako britha,
Tomar sannidhe amar pujo gatha,
Tomar aradhana te ei aache mor paawna,
Tomar asru jaale nibhe jai mor dewa.

Aparajita,

Fire aaso kaache tumi chirodiner jonye,
Koriya kanan fulmoy amar kanthe,
Koriya kantha neil kore pranam neil-kantha ,
Tomar amlan cherhra te ei thake mor kantha…

.... With Love,
Neil.